chickenpox
স্বাস্থ্য পরামর্শ

বসন্ত রোগের কারণ, লক্ষণ ও প্রতীকার

বসন্ত রোগ একটি ভাইরাসজনিত অসুখ। এই রোগ বসন্তকালে বেশী দেখা যায়। এটি একটি সাধারণ রোগ কিন্তু ভাইরাসের পাশাপাশি যদি ব্যাকটেরিয়া দ্বারা আক্রান্ত হয় তবে বেশী জটিলতা ধারণ করে । যেমন : ব্যাকটেরিয়া জনিত নিমোনিয়া। জীবনে এক বার বসন্ত রোগ হলে, শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হয়, ফলে দ্বিতীয়বার আর হয় না।

 

বসন্ত রোগের কারণ :

বসন্ত রোগ “হারপেস ভ্যারিসিলা থোসটার” নামক ভাইরাস দ্বারা হয়। আক্রান্ত ব্যাক্তির সর্দি, কাশি, থুথু, হাঁচি, কাপড়, চাদর এবং চামড়ার খোসা ওরস থেকে হতে পারে। এই রোগটি ১০-২১ দিন পর্যন্ত থাকে। তবে শেষ হওয়ার ১-২ দিন আগে থেকে চামড়ার না শুকানো পর্যন্ত ছড়ানোর সম্ভাবনা থাকে।

 

বসন্ত রোগের লক্ষণ :
  • জ্বর, মাথাব্যাথা, চামড়ার লাল ফুসকুরি-ভিতরে পানি থাকা।
  • চুলকানো।
  • পেট থেকে গলা, ঘাড়, মুখ, হাত-পা এভাবে লাল ফুসকুড়ি ছড়াবে ফোসকার মত।

এটি ৭-১০ দিন থাকে। তারপর ধীরে ধীরে শুকাবে । ফুসকুরি গুলো মুখের ভিতরে মাথায় ও চোখের চারদিকে ও ছড়াতে পারে।

 

বসন্ত রোগের চিকিৎসা :

নির্দিষ্ট কোন চিকিৎসা নেই। প্রধানত: উপসর্গ মোতাবেক চিকিৎসা নিতে হবে।

  • জ্বর, ব্যাথা ও চুলকানোর জন্য ঔষধ খেতে হবে।
  • অবশ্যই ডাক্তারের কাছে রোগ নির্ণয় করতে হবে।
  • ডাক্তারের পরামর্শ মত ভাইরাস প্রতিরোধক ঔষধ খেতে হবে।
  • নিয়মত হালকা গরম পানি দিয়ে গোসল করতে হবে।
  • গর্ভবতী মায়ের জন্য এই জীবাণু ক্ষতিকর কারণ গর্ভের সন্তানের ক্ষতি হতে পারে।

 

  •  
    3
    Shares
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
ডা: সেলিনা আক্তার বানু
এম.বি.বি.এস, এমপিএইচ, ডি, এল, পি (ইউ কে), সিসিডি, (ডায়বেটিস এবং হৃদরোগ), পিজিটি (গাইনি). বর্তমানে ডা: সেলিনা ব্রাক ইউনিভার্সিটি মেডিক্যাল সেন্টারে সিনিয়র মেডিক্যাল কনসালটেন্ট হিসাবে কর্মরত আছেন।

বসন্ত রোগের কারণ, লক্ষণ ও প্রতীকার” নিয়ে ২ জন ভাবছে্ন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।